Currently set to Index
Currently set to Follow
Books

প্রেমের উনিশ কুড়ি Pdf Download (Full)

book- স্মরণজিৎ চক্রবর্তী প্রেমের উনিশ কুড়ি Pdf Download free

PREMER UNISH KURI Pdf by Smaranjit Chakraborty Direct download link : –  Link :-1 | Link :-2 | Link :-3Link :-4Link :-5

বুদ্ধিবৃত্তিক আগ্রাসনের পথ সুগম হয়ে যায়। সংস্কৃতি থেকে শুরু করে পণ্য, প্রযুক্তি, তথ্য, অর্থনীতি প্রতিটি ক্ষেত্রে তাদের হাতেই থাকে একচ্ছত্র নিয়ন্ত্রণ। সুকৌশলে তারা তাদের ভাবনার সম্প্রসারণ ঘটিয়ে একটি ‘স্বতঃসিদ্ধ চিন্তার কাঠামো’ বা ‘ওয়ার্ল্ডভিউ’ এর জন্ম দেয়। আধুনিকতার এই ‘ওয়ার্ল্ডভিউ’ই আজ আমরা সারা বিশ্বের মানুষ দাসত্ব স্বরূপ মননে লালন করে চলেছি। অর্থাৎ অজান্তেই আধুনিকতার এই চিন্তা কাঠামো দ্বারা আমরা প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে প্রভাবিত হচ্ছি। আধুনিকতার মতবাদগুলোর প্রস্তাবনা ও অনুসিদ্ধান্ত গুলোকে আমরা ‘স্বতঃসিদ্ধ’ ও ‘স্বপ্রমানিত’ বলে মেনে নিয়েছি।
‘আধুনিকতা’ ও ‘ইসলামি দর্শন’ এর দ্বন্দ্ব চিরন্তন। কারন ইসলাম আমাদের যে ওয়ার্ল্ডভিউ দেয় তা আধুনিকতার ওয়ার্ল্ডভিউ এর সাথে সাংঘর্ষিক। এই দুইটি ওয়ার্ল্ডভিউয়ের ভিত্তি হিসাবে যে ধারণা গ্রহণ করা হয়েছে সেগুলো স্বতন্ত্র। কিন্তু ‘আধুনিকতা’ আজ আমাদের সমাজের শিরায় শিরায় ছড়িয়ে গেছে। আধুনিক সভ্যতার বস্তবাদি ধ্যান ধারণা গুলোকে আমরা শ্বাস প্রশ্বাসের সাথে টেনে নিয়েছি। ফলে ইসলাম ও আধুনিকতার মধ্যে এক সংঘাত বেঁধেছে। এই সংঘাত পরবর্তীতে মুসলিমদের মনে ইসলামি বিশ্বাসের উপর এক সংশয়ের জন্ম দিয়েছে। ইসলামি দর্শনের যৌক্তিকতা তাদের কাছে অবিশ্বাস্য ও সেকেলে বলে মনে হয়েছে। আধুনিকতার মদ পান করে যে সমস্ত মুসলিম ‘সংশয়ে’ হাবুডুবু খাচ্ছেন তারাই হলেন ‘সংশয়বাদী’।
এই সংশয়ে বিভ্রান্ত অনেক মুসলিম শাশ্বত ইসলাম কে অস্বীকার করে মুর্তাদ হয়ে গেছে। আবার কিছু মুসলিম ‘আধুনিকতার লেন্সে’ ইসলাম কে বিশ্লেষণ করার প্রচেষ্টা চালিয়েছে। ইসলামি যে মতবাদ গুলো আধুনিকতার সাথে খাপ খায়না সেগুলো কে তারা বাদ দিয়ে দিয়েছে কিংবা বিকৃতভাবে তা উপস্থাপন করেছে যা ইসলামের সাথে সম্পূর্ণভাবে সাংঘর্ষিক। উম্মাহর এই সংকট কালে পাশ্চাত্য দর্শনের করাল গ্রাস থেকে মুসলিম যুবসমাজ কে সুরক্ষার জন্য কান্ডারি রূপে টলমল তরীর হাল ধরেছেন লেখক ড্যানিয়েল হাকিকাতযু। আলোচ্য ‘সংশয়বাদী’ পুস্তকে তিনি ইসলামের সাথে সাংঘর্ষিক আধুনিক মতবাদ গুলির অসাড়তা খন্ডন করেছেন ও যুবসমাজ কে ভ্রান্তির বেড়াজাল থেকে মুক্ত করেছেন।
ড্যানিয়েল হাক্বিকাতযু জন্মগ্রহণ করেছেন টেক্সাসে। ‘হাভার্ড’ বিশ্ববিদ্যালয়ে তিনি ফিজিক্স ও দর্শন বিষয়ে পড়াশোনার পর ‘টাফটস’ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দর্শন বিষয়ে মাস্টার ডিগ্রি অর্জন করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনাকালীন নোবেলবিজয়ী পদার্থবিদ ও দার্শনিকদের সান্নিধ্যে তিনি আসেন। এছাড়াও সুযোগ্য আলিমগণের তত্বাবধানে নিয়মতান্ত্রিক পদ্ধতিতে দ্বিন ইসলামের জ্ঞানলাভ করেন। তিনি একজন দা’ঈ ইলাল্লাহ। ইসলাম বিষয়ে আধুনিক সময়ের বিভিন্ন সংশয় ও আক্রমনের মোকাবিলা করতে তিনি প্রতিষ্ঠা করেন ‘আলসানা ইন্সটিটিউশন’। এই প্রতিষ্ঠানের সাহায্যে পশ্চিমা মতবাদগুলোর পিছনের ধারণা ও প্রস্তাবনাগুলোর অসাড়তা তিনি খন্ডন করে আসছেন।
‘সংশয়বাদী’ নামটি অত্যন্ত প্রাসঙ্গিক হয়েছে। আধুনিকতার যাঁতাকলে পড়ে যে সমস্ত মুসলিম ইসলাম থেকে দূরে সরে গেছে কিংবা ইসলামি আকিদা ও আদর্শের প্রতি যাদের সংশয় তৈরি হয়েছে, লেখক তাদেরকেই ‘সংশয়বাদী’ হিসাবে চিহ্নিত করেছেন। আলোচ্য বইটিতে লেখক এই সমস্ত সংশয় গুলি কে চিহ্নিত করেছেন এবং ভ্রান্তির নিরসন করেছেন।
বইটির প্রচ্ছদ আমাকে ভীষণ বুদ্ধিদীপ্ত বলে মনে হয়েছে। লেখক অত্যন্ত দক্ষতার সাথে প্রচ্ছদের মধ্য দিয়ে একটি বার্তা প্রেরণ করেছে। প্রচ্ছদে নজর রাখলে আমরা দেখতে পাচ্ছি যে শুট টাই পরিহিত এক ব্যক্তি যিনি আধুনিকতা কে রিপ্রেজেন্ট করছেন এবং এই ব্যক্তির মাথায় একটি খাঁচা আছে যেটি শূণ্য। অর্থাৎ ব্যক্তিটি নিজেকে মুক্তচিন্তক বলে দাবি জানালেও তারা বুদ্ধিমত্তা আসলে খাঁচার মধ্যে বন্দি। আর এই খাঁচাটি হল মর্ডানিটির খাঁচা। ব্যক্তিটির নিজস্ব বোধবুদ্ধি কিছু নেই সে ‘মডার্ন ওয়ার্ল্ডভিউ’ অর্থাৎ ‘ডমিন্যান্ট কালচার’ কে অনুসরণ করছে মাত্র। তার মন ও মস্তিষ্ক এই খাঁচায় বন্দি। এক কথায় প্রচ্ছদটি আউটস্ট্যান্ডিং।
আলোচ্য বইটি মূলত লেখকের প্রবন্ধের সংকলন। প্রবন্ধগুলিকে বিষয়ভিত্তিক ভাবে ১৩ টি অধ্যায়ে সাজানো হয়েছে। প্রতিটি অধ্যায় আবার পৃথক পৃথক শিরোনামে বিন্যস্ত হয়েছে। পশ্চিমা সংস্কৃতির পভাবে মুসলিম যুবসমাজ ‘আধুনিকতা’ নামক এক ব্যাধির সংক্রমণে আক্রান্ত। এই ব্যাধি তাদের মনে আজ সংশয়ের সৃষ্টি করেছে। যেমন ‘ইসলাম কি ব্যাক্তি স্বাধীন তা কে সমর্থন করে..?’, ‘ইসলাম কি মুক্ত চিন্তা কে সমর্থন করে..?’, ‘ইসলাম কি গণতন্ত্রে বিশ্বাসী..?’, ‘হিজাব কি প্রগতির অন্তরায়..?’, ‘ইসলাম কি পুরুষ-নারী অধিকারে সমতায় বিশ্বাসী নয়..?’, ‘কুরআন সুন্নাহর সহবস্থান কি বিজ্ঞানের সাথে সাংঘর্ষিক..?’, ‘ইসলাম কি সেক্যুলারিজমে বিশ্বাসী..?’ এরকম হাজারো প্রশ্নবানে তারা জর্জরিত। লেখক ড্যানিয়েল হাকিকাতজু এই প্রত্যেকটি সংশয় কে বিশ্লেষণ করেছেন। ক্ষুরধার সম্পন্ন মেধায় যুক্তি ও তত্বের সাহায্যে আধুনিকতার এই মতবাদগুলির ধারণা ও প্রস্তাবনাগুলোর ব্যাবচ্ছেদ করেছেন। সর্বোপরি এই সংশয় গুলি নিরসন করেছেন।
◑➤ মর্ডানিটির প্রকোপে পরে যুবসমাজ যে সমস্ত সংশয়ের সম্মুখীন হয় সেই সমস্ত সংশয় গুলিকে লেখক একত্রিকরন করেছেন। অনুসন্ধিৎসু পাঠক এক মলাটেই এই সমস্ত সংশয় নিরসনের রসদ পেয়ে যাবেন।
◑➤ আলোচ্য বইটিতে যে সমস্ত বিষয়ের আলোচনা করা হয়েছে সেগুলো দেখে সাধারণ পাঠকেরা হয়তো ভাবছেন যে এই বইটি হয়তো উচ্চ শিক্ষিত পাঠকের জন্য। কিন্তু লেখক প্রতিটি বিষয় কে সাধারণ পাঠকের উপজীব্য করে সুন্দর ভাবে বিশ্লেষণ করেছেন। অর্থাৎ সকল শ্রেণীর পাঠকেরই বইটি বোধগম্য হবে।
◑➤ বইটির অন্যতম বিশেষত্ব হল অনুবাদের সরলীকরণ ও ভাষার প্রাঞ্জলতা। বইটির অনুবাদক আসিফ আদনান অনুবাদের ক্ষেত্রে মূল ভাব অপরিবর্তিত রাখার চেষ্টা করেছেন। পাঠক বইটি পাঠকালে মৌলিকত্বের স্বাদ পাবেন। তবে মূল বইয়ের কিছু অংশ বাংলাদেশি পাঠকদের কাছে অপ্রাসঙ্গিক মনে হওয়ায় অনুবাদে তা বাদ দেওয়া হয়েছে।
◑➤ বইটি পাঠকালে অনেক নিত্যনতুন ‘টার্ম’ বা ‘দার্শনিক পরিভাষা’ এর সাথে পরিচিত হয়েছি। কিন্তু পাঠদানে তা কোনো সমস্যা হয়নি কারন অনুবাদক ফুটনোটে এই সমস্ত টার্ম গুলির বিস্তারিত ব্যাখ্যা দিয়েছেন। ফলে বিষয় টি আমার কাছে সহজবোধ্য হয়েছে পাশাপাশি জ্ঞানের পরিসরও বিস্তৃত হয়েছে।
আলোচ্য বইটি তে লেখক দাবা খেলার পাশা কে উলটে দিয়েছেন। চিরাচরিত দৃষ্টিভঙ্গীর বাইরে গিয়ে পাঠককে ভাবতে উৎসাহ জুগিয়েছেন। আধুনিকতার মাপকাঠিতে ইসলাম কে বিচার করার পরিবর্তে তিনি ইসলামের চিরন্তন মাপকাঠিতে আধুনিকতা কে বিচার করার পরামর্শ দিয়েছেন। ইসলাম ও আধুনিকতার ওয়ার্ল্ডভিউ এর মধ্যেকার বুদ্ধিবৃত্তিক লড়াই আমাদের বর্তমান প্রজন্মের কাছে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। কিন্তু এই দ্বন্দ্বের প্রকৃতি ও বাস্তবতা সমন্ধে আমাদের যুবসমাজ উদাসীন। তারা আদতে বিশ্বাসই করতে চায়না যে এই দুই ভাবনার মধ্যে কোনো প্রকার দ্বন্দ্ব আছে। আলোচ্য বইটিতে লেখক হাকিকাতযু এই দ্বন্দ্বের স্বরূপ তুলে ধরেছেন। পাশাপাশি এই দ্বন্দ্বকে মোকাবিলা করার কৌশল বাতলে দিয়েছেন। আমার বিশ্বাস আলোচ্য বইটি যুবসমাজের কাছে এক অমোঘ অস্ত্র স্বরূপ যেটি তাকে বুদ্ধিবৃত্তিক লড়াইয়ে সফল হতে সহায়তা করবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
error: Content is protected !!