Currently set to Index
Currently set to Follow
Latest Bangla Pdf

Jibon Jekhane jemon Pdf Download by Arif Azad

Arif azad book jibon jekhane jemon pdf জীবন যেখানে যেমন free Pdf Download 2021 by আরিফ আজাদ:

মানুষ যা চায় তা কি পায়?
এক. পরীক্ষায় পাস করবে না ফেল করবে এটা অজানা থাকার পরও মানুষ অনেক কষ্ট করে পরীক্ষা দেয় পাস করার প্রত্যাশায় । অপারেশন সফল হবে কি হবে না তা অজানা থাকা সত্তেও মানুষ অপারেশন করায় রোগ-মুক্তির আশায় । ফলাফল অজ্ঞাত থাকার অজুহাতে কোনো কাজ ছেড়ে দিয়ে হাত-পা গুটিয়ে বসে থাকা সুস্থ মস্তিষ্কের কাজ হতে পারে না। আপনার তাকদীরে জান্নাত লেখা আছে না জাহান্নাম, তা আপনার জানা নেই। কিন্তু আপনার লক্ষ্য যখন জান্নাত তখন লক্ষ্যে পৌছার জন্য অবশ্যই কাজ করতে হবে ।
আর জান্নাত ও জাহান্নামের শ্রষ্টা যখন বলে দিয়েছেন এটা জান্নাতের পথ আর ওটা জাহান্নামের তখন তা বিশ্বাস করে আমল করতে অসুবিধা কোথায়?
দুই. যার তাকদীরে জান্নাত লেখা আছে, সাথে সাথে এটাও লেখা আছে যে, সে জান্নাত লাভের জন্য নেক আমল করবে, তাই জান্নাতে যাবে । আর যার তাকদীরে জাহান্নাম লেখা আছে/-সাথে সাথে এটাও লেখা আছে যে, সে জাহান্নামের কাজ করবে | ফলে_ে জাহান্নামে যাবে ।
তিন. সবকিছু আল্লাহর ইচ্ছায় হয় । মানুষ সকল কাজই আল্লাহর ইচ্ছায় করে ঠিকই কিন্তু আল্লাহর সন্তুষ্টি মোতাবেক করে না । আল্লাহর সন্তুষ্টি মোতাবেক কাজ করার জন্য সে জান্নাতে যাবে আর সন্তুষ্টি মোতাবেক কাজ না করার জন্য সে জাহান্নামে যাবে।
চার. মানুষ ভালো-মন্দ যা-ই করে আল্লাহর দেয়া শক্তি ও ক্ষমতা আদেশের বলেই করে । তবুও গুনাহের কাজ করার ফলে শাস্তি ভোগ করবে । বিষয়টি বোধগম্যের জন্য বলতে হয় যে, হুকুম দুই প্রকার: কে) আইনগত হুকুম (খ) সৃষ্টিগত হুকুম । সৃষ্টিগত হুকুমের কাজ হলো, আল্লাহ চোখ দিয়েছেন দেখার জন্য । সুতরাং দৃষ্টিসম্পন্ন ব্যক্তি চোখ খুললে দেখবেই । সঙ্গে সঙ্গে আল্লাহ আইনগত বিধান রেখেছেন, অর্থাৎ চোখে দেখার সীমারেখা নির্দিষ্ট করেছেন । তাই সবকিছু দেখা যাবে না । আল্লাহর দেয়া আইনগত বিধান লঙ্ঘন করার কারণেই শাস্তি ভোগ করতে হবে ।
মানুষ যা চায় তা কি পায়? জীবন যেখানে যেমন
প্রশ্ন হতে পারে ইচ্ছা (ইরাদা বা মাশিয়্যত) ও সন্তষ্টি (রিজা) এ দুয়ের মধ্যে পার্থক্য আছে কি?
হ্যা, ইচ্ছা ও সন্তুষ্টির মধ্যে পার্থক্য অবশ্যই আছে। একটি উদাহরণ দিলে বিষয়টা সহজে বুঝা যাবে । যেমন এক ব্যক্তির ছেলে অসুস্থ হয়ে পড়ল । চিকিৎসক বললেন তার পেটে অপারেশন করতে হবে । অপারেশন ছাড়া অন্য কোনো পথ নেই।
এখন বেচারা অপারেশন করাতে রাজি নয় । এ কাজে সে সন্তুষ্ট নয়, তবুও সে অপারেশন করিয়ে থাকে । এমন কি এ কাজের জন্য ডাক্তারকে টাকা- পয়সা দেয় । অতএব দেখা গেল এ অপারেশনে তার ইচ্ছা পাওয়া গেল কিন্তু সন্তুষ্টি পাওয়া যায়নি । অপারেশন করাতে সে ইচ্ছুক, রাজি নয়। দেখা গেল ইচ্ছা ও সন্তুষ্টি দুটো আলাদা বিষয় ।
অনেক সময় ইচ্ছা পাওয়া যায় কিন্তু সেখানে সন্তুষ্টি পাওয়া যায় না। কিন্তু যেখানে সন্তুষ্টি পাওয়া যায় সেখানে ইচ্ছা অবশ্যই থাকে । তাই সকল কাজ মানুষ আল্লাহর ইচ্ছায় করে ঠিকই কিন্তু তার সন্তুষ্টি ও রেজামন্দি অনুযায়ী করে না । বিভ্রান্তি তখনই দেখা দেয় যখন ইচ্ছা দ্বারা সন্তষ্টি বুঝানো হয় ।
আর আল্লাহ তাআলার সন্তুষ্টি ও অস্তষ্টি কীভাবে বুঝা যাবে? মানুষ কোনো খারাপ কাজ করলে এ কথা বলা যাবে না যে, এ ক্ষেত্রে মানুষের কোনো ইচ্ছা ছিল না। এ কথাও বলা যাবে না যে, আল্লাহর ইচ্ছার বিরুদ্ধে কাজটি হয়েছে । কাজটা আল্লাহর ইচ্ছায় হয়েছে এটা যেমন সত্য তেমনি মানুষের ইচ্ছাও কাজটা করার ব্যাপারে ভূমিকা রেখেছে। কীভাবে এটা সম্ভব?

একটা উদাহরণ দিলে বিষয়টা পরিষ্কার হবে আশা করছি। যেমন: বিদ্যুৎ ব্যবহারের ক্ষেত্রে বিদ্যুৎ বিতরণ কর্তৃপক্ষ ও বিদ্যুৎ গ্রাহকের ভূমিকা । বিদ্যুৎ বিতরণ কর্তৃপক্ষ ইচ্ছা করলে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ করার ক্ষমতা রাখে, তেমনি বিদ্যুৎ গ্রাহকও ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ করার ক্ষমতা রাখেন । কিন্তু দায় বহন করতে হবে বিদ্যুৎ গ্রাহকের | মাস শেষে যখন হাজার টাকার বিদ্যুৎ বিল এলো তখন কর্তৃপক্ষকে এ কথা বলে দোষ

দেয়া চরম বোকামি হবে যে, তারা কেন বিদ্যুৎ সরবরাহ করল, তারা ইচ্ছা করলে আমার বিদ্যুৎ খরচ কমাতে পারত ।
তারা ইচ্ছা করলে বিদ্যুৎ সরবরাহ নিয়ন্ত্রণ করে আপনার খরচ কমাতে পারত এটা যেমন ঠিক, তেমনি আপনিও সাশ্রয়ী হয়ে বিদ্যুৎ খরচ কমাতে পারতেন । আর খরচের এ দায়ভার বহন করবেন গ্রাহক; কর্তৃপক্ষ নয় । কেননা এ ক্ষেত্রে গ্রাহকের ইচ্ছা ও কর্মই দায়ী ।
তাই মানুষের ভালো-মন্দ আমলের ব্যাপারেও এটা বলা যায় যে, আল্লাহ ইচ্ছা করলে মন্দটা করত না। আবার করার জন্য মানুষই দায়ী- তার ইচ্ছাশক্তি প্রয়োগের জন্য ৷ যেমন মহান আল্লাহর বাণী-
“যদি তোমার প্রতিপালক ইচ্ছা করতেন তাহলে পৃথিবীর সব মানুষই ইমান গ্রহণ করত । তবে কি তুমি মানুষকে বাধ্য করবে, যাতে তারা মুমিন হয়?
সারকথা : নিজেদের খারাপ কাজগুলো “আল্লাহর ইচ্ছায় ও তাকদীরের লেখা থাকার কারণে হয়েছে এ ধরনের কথা বলে খারাপ কর্মের শাস্তি থেকে রেহাই পাওয়া যাবে না । তাকদীরের দোহাই দিয়ে জাহান্নাম থেকে নিস্কৃতি কিংবা জান্নাত লাভের স্বীকৃতি পাওয়া যাবে না।
সবচেয়ে অল্প দামে ও সর্বোচ্চ ছাড় মূল্যে সবার আগে বইটি কিনতে পারেন বিশ্বস্ত  অনলাইন শপ BDbookstore থেকে।
Jibon Jekhane jemon Arif Azad Pdf Download link: click here to downloadজীবন যেখানে যেমন pdf
This article colect from: pdf poka jibon jekhane jemon

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
error: Content is protected !!