others

বন্ধন – bondhon pdf book Download & Review

বইঃ বন্ধন
– উস্তাদ নোমান আলি খান-এর লেকচার অবলম্বনে
অনুবাদঃ NAK BANGLA টিম।
publication: গার্ডিয়ান প্রকাশনী

বর্তমানে ‘ভালোবাসা’ শব্দটা বেশিরভাগ ক্ষেত্রে অশ্লীলতায় ভরপুর।এই ভালোবাসা শব্দটা কতোটা পবিত্র তা এই বইটা না পড়লে জানা হতো না।বন্ধন আর ভালোবাসা যেন পেটের সাথে পিঠের ন্যায়।এই ভালোবাসার সাথে কি আমাদের পরিচয় আছে?

আমরা কারো মা,বোন,জীবনসঙ্গী,স্বামী আবার কেউ আমাদেরই সন্তান।পারিবারিক, সামাজিক,এমনকি অাধ্যাত্নিক পরিমন্ডলে এই সম্পর্কগুলোই আমাদের নানান পরিচয়ে পরিচিত করে।যে সম্পর্কগুলোর সাথে জড়িত ভাবাবেগ শব্দে আবদ্ধ করা খুব কঠিন।সম্ভব ও না শব্দে সম্পর্কের অর্থ ফুটিয়ে তুলা।

সম্পর্কের প্রতিটি পরিচয়ই আমাদের কোনো না কোনো বন্ধনে আবদ্ধ করে।চাই সেটা হোক বাবা-মায়ের সাথে সম্পর্ক, স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্ক, ভাই-বোন,বন্ধু-বান্ধব কিংবা প্রতিবেশীর সাথে সম্পর্ক।বন্ধন মজবুত হয় ভালোবাসার পরিমন্ডলে এসে।
আমাদের বাবা-মা নিরলস পরিশ্রম করেন আমাদের জন্য সঠিকভাবে গড়ে তোলার জন্য।পরিবার আমাদের স্বস্তির জায়গা। দিনশেষে চাতক পাখির ন্যায় অপেক্ষা করি সেই ঠিকানায় যেতে। কিন্তু আমরা বেশি অবহেলা করি এই ঠিকানার মানুষদের। তারাই নেয়ামত আর সম্পদ এটাই বইয়ের আলোচনা।

একটি সুখী দাম্পত্য জীবনের জন্য দুজনকে সময়,শ্রদ্ধা, ভালোবাসা দায়িত্ব ইনভেস্ট করতে হয়।একজন এক্সপেকটেশন নিয়ে বসে না থেকে নিজে এগিয়ে গিয়ে সম্পর্ক দৃঢ় করায় মনোনিবেশ করবে।আগে নিজে দায়িত্ববান হই তাহলে আশেপাশটা একটু একটু করে সুন্দর হয়ে উঠবে।

লেখক গুরুত্ব দিয়েছেন প্যারেন্টিংকে। কিভাবে সন্তানের সুরক্ষার কথা চিন্তা করতে হবে,কিভাবে তাকে নৈতিকতা শিক্ষা দিতে হবে,নামাজের প্রতি ভালোবাসা তৈরি করতে হবে,কিভাবে শত ব্যস্ততায় তাদেরকে সময় দিতে হবে তা জানিয়েছেন।প্যারেন্টিং কেমন হওয়া উচিত তা ব্যাখ্যা করতে গিয়ে হযরত ইউসুফ (আ) এর সাথে পিতা হযরত ইয়াকুব (আ) এর হৃদ্যতার যে এক্সামপল দিয়েছেন তা অধিকাংশ পাঠককে নতুনকরে ভাবনার খোরাক জাগাবে।শিশুদের সাথে শৈশবেই বন্ধন তৈরি করতে না পারলে কৈশোরে তারা পিতা মাতার হাতছাড়া হয়ে যায়, বিষয়টি খুব গভীরভাবে বিশ্লেষণ করেছেন।

এই বন্ধনগুলোর গভীরতাই আমাদের অস্তিত্ব,আমাদের পরিচয়।যা আমাদের জীবনকে সজ্ঞায়িত করে দ্বায়িত্ব দিয়ে,ভালোবাসা দিয়ে।জীবনভর এই সম্পর্কের বন্ধনের কারণেই তো আসল এই আমরা।জীবনের রঙ্গে রঙ্গিন,পার্থিব অথচ অপাংক্তেয়,একইসাথে অপার্থিব কিন্তু মায়াবি-এই অদ্ভুত বন্ধনগুলোর নিবিড় খুঁটিনাটি নিয়েই বইটি।নিজেদের আপন সম্পর্কের মিষ্টতা -তিক্ততা,বুঝাপড়া,কর্তব্যের ভাষাগুলোই এক হয়ে মলাট বদ্ধ হয়েছে বইয়ের পাতায় কালির অক্ষরে। শব্দ হয়ে ফুঁটেছে “বন্ধন” নামে।

আরবিতে আছে,

“রুব্বা সুকুতিন আদাল্লু মিন কালামিন”
অর্থাৎ নিরবতা অনেক সময় কথা বলার চেয়েও বেশি বুঝায়।

দাম্পত্য,পরিবার,প্যারেন্টিং এবং পিতা-মাতার প্রতি দায়িত্ব-কর্তব্য নিয়ে বইটি।বইটির বিষয়বস্তু তো অবশ্যই চমৎকার;তবে নোমান আলী খানের অসাধারণ উপমার শৈল্পিকতা,তুলনাহীন এক্সপ্লেনেশন,মনস্তাত্বিকতা ও সাবলীল ভাষায় উপস্থাপনের কারণে বইটি সুখপাঠ্য ও চিন্তার খোরাক হবে। বিষয়বস্তুুর গভীরতার দিক দিয়ে এর চেয়ে তথ্যবহুল ও সমৃদ্ধ বই অবশ্যই আছে।কিন্তু এ বইয়ের মত বিশ্লেষণ আছে বলে আমার জানা নেই।নোমান আলী খানের সাথে জানাশোনা আছে এমন কাউকে তার বিশ্লেষণের দক্ষতা নতুন করে বুঝানোর কিছু নেই।তাই বইটি ছোট থেকে বড় সবধরণের পাঠকের জন্য প্রযোজ্য।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
error: Content is protected !!