bangla translation pdf book

দি পাওয়ার অব হ্যাবিট চার্লস ডুহিগ PDF download

বইয়ের নাম: দি পাওয়ার অব হ্যাবিট
লেখকের নাম: চার্লস ডুহিগ
ধরণ: অনুবাদ বই

ক্যাটাগরি: আত্ম-উন্নয়নমুলক ও মেডিটেশন বই

মোট পেজ: ২৫৬ পৃষ্ঠা

বইটি পড়ে আপনি জানতে পারবেন-

কেন আমরা কাজ করি অর্থাৎ কেন কাজ করতে হয়। ওই কাজটা কিভাবে করি এবং কিভাবে করলে সে কাজের পরিবর্তন আনা সম্ভব যাতে ঐ কাজে সফলতা পাওয়ায় যায়। ✓✓

দি পাওয়ার অব হ্যাবিট চার্লস ডুহিগ বই রিভিউ:

পাঠক রিভিউ হতে জানা গেসে যে বইটির অনুবাদ নাকি খুবই বাজে হয়েছে। যাই হোক, তাও পড়তে পারেন। তবে রিকোমেন্ড থাকবে মুল ইংরেজি বইটা পড়ার জন্য।

দি পাওয়ার অব হ্যাবিট বইয়ের লেখক চার্লস ডুহিগ, যিনি ১জন পুলিৎজার পুরস্কার বিজয়ী। এটি তার best selling  সেলফ development বই। বইটি টানা ১২০ সপ্তাহ New York time best seller লিস্ট এও অন্তর্ভভুক্ত ছিল।

the power of habit bangla translated বইটির শিক্ষা কাজে লাগিয়ে অনেক মানুষ নেশা ছেড়েছেন, আলস্যকে হার মানিয়েছেন,  ভালভাবে বাচতে শিখেছেন, নিজের econic ও social অবস্থার উন্নতি করতে শিখেছেন।

১ বাক্যে এই  বইটির মুলভাব বলে নিই- বইটি আমাকে আপনাকে বুঝতে হেল্প করবে, কেন আমাদের হ্যাবিট গুলো আমাদের সকল কাজের মূল, এবং কিভাবে একে চেঞ্জ করে কাজে লাগিয়ে আমাদের লাইফকে সফল ও সার্থক হিসেবে গড়ে তুলতে পারি।

পাওয়ার অব হ্যাবিট বইয়ের introduction এ লেখক চার্ল ডুহিগ লিসা নামে ১মহিলার স্টোরি বলেছেন। লেখকের ভাষ্যমতে- ঐ মহিলার জীবনে কোনোকিছুই যেন ভালোভাবে চলছিল না। তার হাজার হাজার dollar ঋণের বোঝা ছিল, কোনও কাজেই সে ২মাসের বেশি টিঁকতে পারতো না, সেইসাথে তার ছিল খুব রকমের ভয়াবহ রকমের মাদক আসক্তি। এর পাশাপাশি, খাওয়ার ওপর তার কোনও নিয়ন্ত্রণ ছিল না, বাড়তি ওজনের কারণে তার fitness ছিল খুব বাজে রকমের। চরম রকমের অলস ও অকর্মা lisa মিশরে ট্রাভেল করতে গিয়ে ঘটনাক্রমে ডিজিসান নিল, সে তার লাইফকে বদলাবে। সে ঠিক করল, ১ বছর পর সে এই মরুভূমিতে adventure করবে। এবং তার জন্য নিজেকে fitted করে তুলবে। ১মে সে সিগারেট ছাড়ার ডিজিশান নেয় – এই ১টি হ্যাবিট বদলাতে গিয়ে তাকে আরও কিছু হ্যাবিট চেঞ্জ করতে হয়। শরীরকে স্ট্রং ও ঝরঝরে রাখার জন্য exercise করা, রুটিনমাপিক নিয়ম করে খাওয়া-দাওয়া করা, টাইমলি ঘুমাতে যাওয়া ও ঘুম থেকে ওঠা – ইত্যাদি হ্যাবিটও সে করতে স্টার্ট করল।

এতে করে ওই মহিলার বডি তো fit হয়েই গেল, সেইসাথে তার ফেচও সেই রকম আকর্ষণীয় হয়ে উঠল। routine মেনে চলার হ্যাবিট করার কারণে, সে যে কোনও কাজ সে টাইমমত করতে লাগল, ফলে তার আলস্যতা কমে গেল। তার সবকিছুতেই performance ভালো হতে লাগল। আর, অল্প কিছুদিনের মধ্যেই সে ১টি ভালো চাকরি পেল, এবং মন দিয়ে কাজ করতে শুরু করল। তার সব ফিন্যান্স ঝামেলা তো মিটলোই, bank এও বাড়তি tk জমার পাশাপাশি সে নিজের বাড়িও buy করে ফেলতে পারল।

দি পাওয়ার অব হ্যাবিট চার্লস ডুহিগ PDF free download: click here

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
error: Content is protected !!